কান্দালার পাক (আরএ) ও তার উত্তরাধিকারী সৈয়দ বাবা জি

শান্তি ও আশির্বাদ তাদের জন্য যারা কালান্দার পাক রাহমাতুল্লাহ

শান্তি ও আশির্বাদ তাদের জন্য যারা কালান্দার পাক রাহমাতুল্লাহ আলাইহে কে ভালোবাসেন এবং অনুসরণ করেন।

কালান্দার পাক রাহমাতুল্লাহ আলাইহের ব্যক্তিত্ব এবং আধ্যাত্মিক জীবনের

কথা গভীরভাবে অনুসন্ধান করার আগে আমি তার জীবনের কিছু ভুল উপলব্ধি এবং

ভিত্তিহীন বিভ্রম কথাগুলি রদ করার বিবেচনা করবো যেমন তার জনমের দিন, তার

শেষ আবাসদিনের যাএা, তার বার্ষিক তীর্থযাত্রা এবং উত্তরাধিকারসূত্র

পাওয়া, যাতে যারা কালান্দার পাক রাহমাতুল্লাহ আলাইহের মনোমুগ্ধকর

দয়াশীলতা পেতে চায় এবং তাঁর বেপারে আরো জানতে চায় তারা বাস্তবতা জেনে

আলোকিত হোক কোন রকমের বিক্ষেপ থেকে এবং এই হতাশ মানবতাকে ধারাবাহিকতা

পরিমাপে অডিও টি ছড়ানো হোক।কালান্দার পাক রাহমাতুল্লাহ আলাইহেকে ভালবাসা ও সম্মান জানানোর শুধুমাত্র

একই নিশ্চিত উপায় হল এই নিরাশ্বাস ও কষ্টভোগ মানবতাকে সর্বাধিক

সংকল্পভাবে (অডিও) ছড়ানো হক।কালান্দার পাক রাহমাতুল্লাহ আলাইহের আসল নাম, বিখ্যাত ভাবে জানা "কাকীদের

সরকার" মানে হল- সর্বোচ্চ ঐশ্বরিক মাতৃত্ব।

এটি একটি বিশেষ বৈশিষ্ট্য যা নি: স্বার্থ ও পবিত্র ভালবাসা প্রকাশ করে,

যা একটা মা'র উপর (কাকী) প্রদত্ত করা হয়েছে। এবং এই সম্পর্কের উত্কর্ষে

দাড়ায় আত্মোৎসর্গের চিহ্ন, প্রতিশ্রুতি, মানোবতার জন্য স্নেহশীলতা এবং

ভালবাসার পবিত্রতা যা কালান্দার পাক রাহমাতুল্লাহ আলাইহের

শ্রদ্ধেয় ব্যক্তিত্বকে বিবেচন করে।এবং রুপকশোভিত উল্লেখে তাঁকে খেতাব অর্জন করায়, কাকীদের সরকার

(রাহমাতুল্লাহ আলাইহে)

তাঁর নাম হল সৈয়দ সফদর হসেন বুখারি (রাহমাতুল্লাহ আলাইহের )কালান্দার পাক রাহমাতুল্লাহ আলাইহে জন্ম নিন ১৯৪০ সালে (এড), সোমবার , ৬

মে তে,একটি ধনশীল পরিবারে, জেলা ঝেলুমের একটি সৌভাগ্যশালী গ্রামে নাম

দুধিথাল, টেহসীল ( টাউন) পিন্ড দাদনখানে।দীর্ঘ বছর এই মানবতাকে নিঃস্বার্থ ভাবে সাহায্য করে, কালান্দার পাক

রাহমাতুল্লাহ আলাইহে দুনিয়া ছেড়ে চলেজান, মঙ্গলবার, ৮ ফেব্রুয়ারি,

২০০৫ সালে।

প্রতি বছর ৬,৭,৮ ফেব্রুয়ারিতে কালান্দার পাক রাহমাতুল্লাহ আলাইহের উড়ুশ

মোবারক উৎযাপন করা হয়।অডিও থেরাপির সম্মন্ধে, সৈয়দ বাবা (কালান্দার পাক রাহমাতুল্লাহ আলাইহে

উত্তরাধিকারীর) কিছু বক্তব্য

কান্দালার পাক (আরএ) ও তার উত্তরাধিকারী সৈয়দ বাবা জি

সৈয়দ বাবুর উত্তরাধিকারী কান্দালার পাক রেহমা তল্লা আলেহের কথা শ্রোতা সম্পর্কে


এটাই হচ্ছে সুফি কালান্দার বাবা'র উদ্দেশ্য সকল মানব জাতির প্রতি যেন
তাদের বিভিন্ন রোগ বা অসুস্থতার জন্য চিকিৎসা প্রদান করা, সেটা হোক
মানুসিক বা শারিরিক
যখন আমরা মানব জাতির কথা বলি,তখন আমরা সকল ধর্ম ও বিশ্বাস এর কথা বলি,
যার মধ্যে এই পৃথীবির সকল মানুষ এর রয়েছে তবে যেটাই তাদের ধর্ম বা
বিশ্বাস হোক না কেনো।
এই অডিও থেরাপি মাধ্যমে কেউ আপনার বিশ্বাস পরিবর্তন করতে চায় না বা কেউ
আপনাকে নতুন কোন ধর্ম বা বিশ্বাসের কথা বলতে চায় না । এইটা করার
উদ্দেশ্য হচ্ছে যেন পৃথিবীর সকল মানুষ বিনামূল্যে এই অডিওটি পেতে পারে
এবং লাভ করতে পারেএই অডিওটি শব্দ বিশ্বের সকল সুর বা সংগীত থেকে মধুর এবং ভীষণ বড় যাহা
চোখ বন্ধ করে শুনলে যে কোন রোগ দূর হয়

এই অডিওটি প্রতেক মানুষের জন্য জীবনে শুধু মাত্র একবার শুনতে হবে সাতদিন

পর্যন্ত ৩ বার সকাল দুপুর রাত চোখ বন্ধ করে। অডিওটি শেষ হওয়ার পর
অর্ধেক গ্লাস পানি নিয়ে চোখ আবার বন্ধ করে মনে মনে ৩ বার যেই ধর্মে আপনি
বিশ্বাস করেন তার নাম বলতে হবে তারপর চোখ বন্ধ অবস্থায় পানিটি ৩ ঢকে
খেতে হবে। যেমন যারা ঈশ্বরকে বিশ্বাস করেন তারা চোখ বন্ধ করে তাকে স্মরণ
করে মনে মনে তিনবার ঈশ্বর বলেন এবং অন্যরা যেই ধর্মে বিশ্বাস করেন তাকে
স্মরণ করে মনে মনে ৩ বার করে তার নাম বলবেন।
আসুন আমরা ভালোবাসা ও শান্তি দিয়ে দুঃখী দুর্বল এবং কষ্টময় মানবজাতিকে রক্ষা করি
এই অডিওটি যেই ব্যক্তি হাতে পেয়ে থাকেন তার জন্য সোনাটা সম্পূর্ণ
বিনামূল্যে। দয়াকরে অডিওটি শুনুন এবং অন্যদেরকে দিন